পা সুন্দর রাখার ৪টি ঘরোয়া টোটকা!

রূপচর্চা বলতে মুখ কিংবা হাতের যত্নই বুঝি আমরা। ক’জন আর পায়ের দিকে নজর দেন! অল্পসংখ্যক মানুষই আছেন, যারা পায়ের প্রতি যত্নশীল। প্রতিদিন নানা কাজে আমাদের বাইরে বের হতে হয়। ফলে সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ে পায়ের ওপরেই। ধুলো-ময়লা, রোদ ইত্যাদির কারণে পা বিবর্ণ হয় খুব সহজেই। পরিচ্ছন্নতাই সৌন্দর্যের মূল কথা। তাই নিজেকে সুন্দর ও রুচিশীল হিসেবে প্রকাশ করতে চাইলে যত্ন নিন পায়েরও।

লেবুর রস
ভিটামিন সি-এ ভরা লেবু ত্বকের জন্য ভীষণ উপকারী। এই লেবু ব্যবহার করেই কিন্ত আপনি পা পরিষ্কার ও সুন্দর করে তুলতে পারেন। প্রথমে একটি পরিষ্কার পাত্রে লেবুর রসটুকু বের করে নিন। এরপর তুলার সাহায্যে পায়ের দাগগুলোতে লাগান। এভাবেই শুকাতে দিন। এরপর পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিনদিন এটি মেনে চলতে পারেন। পায়ের কালচে দাগ দূর হবে।

শসা
রূপরচর্চায় শসার উপকারিতার কথা জানেন নিশ্চয়ই? ত্বককে আর্দ্র রাখার অন্যতম সহজ উপায় হলো এই শসার ব্যবহার। শসা ত্বককে উজ্জ্বল করে এবং এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ত্বকের দাগ দূর করে। শসা ছাড়িয়ে তার পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টের সঙ্গে গোলাপজল মিশিয়ে নিন। এরপর মিশ্রণটি পায়ে ভালোভাবে লাগান। শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত সময় দিন। এরপর জল দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন গোসলের আগে এই পদ্ধতি প্রয়োগ করতে পারেন। পায়ের দাগ দূর হবে সহজেই।

আপেল সাইডার ভিনেগার
আপেল সাইডার ভিনেগার ত্বকের জন্য উপকারী একটি উপাদান। এর ব্যবহারে ত্বকের ট্যান দূর হয় খুব দ্রুত। প্রথমে ছয় চামচ জল নিন। এরপর এতে দুই চামচ আপেল সাইডার ভিনেগার মেশান। মেশানো হয়ে গেলে পায়ে মাখুন ভালোভাবে। প্রতিদিন এমনটা করলে ত্বকের দাগ কমে যাবে।

চিনির স্ক্রাব
চিনির স্ক্রাব পায়ের জন্য উপকারী। এতে ডেড স্কিন ও দাগ দূর হয়। দুই চামচ চিনি এবং চার চামচ অলিভ অয়েল ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপরে পায়ে ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পরে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই-তিনদিন এমনটা করলে ফল পাবেন দ্রুত

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress