সুস্থতার জন্য কতক্ষণ রোদে থাকতে হবে? জেনেনিন

আমরা সবাই জানি, রোদ হলো ভিটামিন ডি এর সবচেয়ে ভালো উৎস। এটি আমাদের শরীরের বিভিন্ন ক্রিয়া সম্পাদন করার জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ প্রয়োজন হয়। আমরা ভাগ্যবান যে, সূর্যের আলো প্রচুর পেয়ে থাকি, কিন্তু নানা দেশে প্রচুর লোক ভিটামিন ডি এর ঘাটতিতে ভুগছেন।

ট্যানিং কিংবা রোদে পোড়ার ভয়ে আমরা রোদে খুব বেশি সময় থাকতে চাই না। অন্যদিকে শুধু খাদ্য থেকে এই পুষ্টি পর্যাপ্ত পাওয়া সম্ভব নয়। সুতরাং প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডি পেতে কতক্ষণ রোদে থাকা প্রয়োজন তা প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

কতক্ষণ রোদে থাকতে হবে
এই সমালোচনামূলক প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে, পলিটেকনিক বিশ্ববিদ্যালয় ভ্যালেন্সিয়া (ইউপিভি) এর সোলার রেডিয়েশন রিসার্চ গ্রুপের গবেষকরা একটি বিশদ গবেষণা করেছেন। সমীক্ষার ফলাফল সায়েন্স অব টোটাল এনভায়রনমেন্ট জার্নালে প্রকাশ হয়েছিল।

গবেষণা অনুসারে, বসন্ত এবং গ্রীষ্মে রোদে ১০ থেকে ২০ মিনিট থাকলেই তা যথেষ্ট। তবে শীতকালে কমপক্ষে ২ ঘণ্টা রোদে থাকতে হবে। কারণ শীতকালে আমাদের শরীরের কেবল ১০ শতাংশ সূর্যের রশ্মির সংস্পর্শে আসে। তাই প্রচুর ভিটামিন ডি পেতে সময় লাগে।

গ্রীষ্মে আমাদের দেহের ২৫ শতাংশ সূর্যের আলো পায় এবং পুষ্টি গ্রহণ করতে কম সময় প্রয়োজন হয়। সর্বাধিক ভিটামিন ডি পেতে রোদে থাকার সর্বোত্তম সময় হলো সকাল ১০টা থেকে ৩টা অবধি।

ভিটামিন ডি এর গুরুত্ব
যখন আমাদের ত্বক সূর্যের আলোর সংস্পর্শে আসে তখন এটি কোলেস্টেরল থেকে ভিটামিন ডি তৈরি করে। এই পুষ্টিগুণ দেহে ক্যালসিয়াম এবং ফসফেট শোষণের জন্য অত্যাবশ্যক। এটি আপনার দাঁত এবং হাড়কে শক্তিশালী রাখতে সহায়তা করে। ভিটামিন ডি এর ঘাটতি হাড় হ্রাস, দুর্বল পেশী, রিকেটস এবং অস্টিওপোরোসিসের মতো বেশ কয়েকটি স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণ হতে পারে।

ভিটামিন ডি এর অন্যান্য উৎস
কেবলমাত্র কয়েকটি খাদ্যে ভিটামিন ডি রয়েছে, তা-ও অল্প। ঢেঁড়স, দুগ্ধজাত পণ্য এবং মাশরুমে অল্প ভিটামিন ডি পাওয়া যায়।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress