মেদ ঝরিয়ে সুস্থ রাখতে এই একটি খেলাই যথেষ্ট! দেখেনিন

ওজন কমাতে আর মেদ ঝরাতে নানা নিত্য নতুন কসরত আবিষ্কার হচ্ছে। বর্তমানে পাড়ার মোড়ে মোড়ে গড়ে উঠছে জিম। মানুষও অনেক বেশি সচেতন হচ্ছেন আগের চেয়ে। কিন্তু যখন এত বেশি জিম ছিল না, তখনকার মানুষেরা কীভাবে নিজেদের ফিট রাখতেন?

একটু খেয়াল করে দেখুন ছেলেবেলার কথা। যখন পাড়ায় পাড়ায় ফাঁকা মাঠে ব্যাডমিন্টন কোর্ট কেটে নেট টাঙানো থাকতো সারা বছর। নারী-পুরুষ, ছেলে-বুড়ো নির্বিশেষে চলত খেলা। পিকনিক বা কোনো গেট টুগেদারে টিম তৈরি করে ব্যাডমিন্টন খেলা চলতো রীতিমতো।

উপকারিতা দিক দিয়ে অন্য যেকেনো খেলার চেয়ে ব্যাডমিন্টন অনেকটাই এগিয়ে। আউটডোর স্পোর্টস হলেও এটি খেলতে খুব বেশি শক্তিশালী হতে হয় না। আবার যেকোনো বয়সীরাই খেলতে পারেন। খেলাও যায় সারা বছর।

যাদের উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস বা স্থুলতার সমস্যা আছে, তারা স্বচ্ছন্দে ব্যাডমিন্টন খেলতে পারেন। ব্যাডমিন্টন খেলতে যেহেতু অন্তত একজন পার্টনার লাগেই, তাই সোশাল স্কিল ভালো হয় ক্রমশ। যাদের সঙ্গে খেলবেন, তাদের সঙ্গে কথাবার্তা বলতে হবে। আর এভাবেই নতুন বন্ধুত্বও তৈরি হতে পারে।

আপনি যত নড়াচড়া করবেন, তত ফ্লেক্সিবিলিটি বাড়বে। সেইসঙ্গে বাড়বে মাসল বা পেশির শক্তিও। মাসলে মুভমেন্ট হলে ভালো থাকে হাড়ের জোড়ার জায়গাগুলোও।

ব্যাডমিন্টন আপনি এক জায়গায় দাঁড়িয়ে খেলতে পারবেন না। ছোটাছুটি করতে হবে, ব্যালেন্স করতে হবে, শাটল কক কতটা উঁচু থেকে এসে র্যাকেটে লাগবে সেটা আন্দাজে বুঝতে হবে, ফলে বাড়বে ভারসাম্য আর একাগ্রতা।

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই প্রতিটি ক্ষেত্রেই সমস্যা তৈরি হয়, তাই বেশিদিন সুস্থ ও মেদহীন ঝরঝরে থাকতে হলে ব্যাকেট তুলে নিন হাতে।

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress