আপনি কি আপনার অফিসে কাজে মনোসংযোগ হারাচ্ছেন? তাহলে জেনেনিন এর থেকে রেহাই পেতে কি করণীয়

দীর্ঘ সময় একই কাজ করা বা কাজের মাঝে বিভিন্ন চিন্তা মাথায় ঘুরলে অফিসে মনোসংযোগ হারানোর শঙ্কা রয়েছে। এছাড়াও রাতে ভালো ঘুম না হলেও সকাল থেকে একটি ক্লান্তভাব অনুভব হয়, যা কাজে মনোসংযোগে ব্যাঘাত ঘটায়।

তাছাড়া দুপুরের খাবার খেয়েই কি ঘুমে চোখ বুজে আসে? অনেকেই মনে করেন এই অভ্যাসের কারণে ওজন বেড়ে যায়। দিবানিদ্রা কিন্তু মোটেও বদভ্যাস নয়। বরং এই অভ্যাস খুবই স্বাস্থ্যকর। কম সময়ের জন্য হলে সেটা শরীরের পক্ষে ভালো। তবে ভাতঘুম লম্বা হয়ে গেলেই মুশকিল। তাই বাড়িতে থাকলে তো বটেই, অফিসেও দুপুরের খাওয়া সেরে সুযোগ পেলে দিয়ে নিতে পারেন ‘মিনি ন্যাপ’। শরীর চাঙ্গা করতে এই অভ্যাসের কোনও জুড়ি নেই।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, দুপুরে খাওয়ার পর ঘুমনোর অভ্যাস আপনার স্মৃতিশক্তি বাড়িয়ে দিতে পারে।

ঘুম কম হলে শরীরে কর্টিসল নামক স্ট্রেস হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। খাওয়ার পর ঘুম পেলে ঘুমিয়ে পড়াই ভালো। এতে মন ও মেজাজ দুইই শান্ত থাকে। মানসিক চাপ কমাতেও এই অভ্যাস খুবই ভালো।

কাজের মাঝে ক্লান্তি এলে অনেকেই ভরসা রাখেন এক কাপ কফিতে। মিনিট দশেকের ঘুম কিন্তু কফির থেকেও বেশি কার্যকর হতে পারে। এই অভ্যাস আপনার ক্লান্তি দূর করবে।

উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা যাদের রয়েছে, তারা খাওয়ার পর আধ ঘণ্টা ঘুমিয়ে নিলে কিন্তু রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। ঘুমালে মানসিক চাপ কমে, সে কারণে রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে থাকে। হৃদ্স্পন্দনের হারও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কাজ করতে করতে অনেক সময়ে একঘেঁয়েমি আসে। মাথায় নতুন চিন্তা-ভাবনা আসে না। ফলে কাজের ক্ষতি হয়। এ ক্ষেত্রে আপনি যদি কিছু ক্ষণ ঘুমিয়ে নেন, তা হলে আপনার সৃজনশীলতা বাড়বে। কিছু ক্ষণের ঘুম মস্তিষ্কের কার্যকারিতা কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিতে পারে।bs

Related Posts

© 2022 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress