জীবনযাপন

মুহূর্তেই মন ভালো করার সহজ কিছু উপায়, জেনেনিন অবশ্যই

মন থাকলে মন খারাপও থাকবে। কারণ সবদিন সমানভাবে মন ভালো থাকে না। কোনো কোনো দিন মন থাকে ফুরফুরে, সেদিন সবকিছুই ভালোলাগে। আবার কোনো কোনো দিন জমা হয় মন খারাপের মেঘ। সেদিন আর কোনোকিছুই ভালোলাগে না যেন। মন খারাপ হয় যেমন স্বাভাবিক ঘটনা, সেই মন খারাপকে বাড়তে দেওয়া তেমনই অস্বাভাবিক।

মন খারাপ হলে যত দ্রুত সম্ভব তা ভালো করার চেষ্টা করাই উত্তম। কারণ আপাতদৃষ্টিতে সাধারণ এই মন খারাপই আপনাকে বড় কোনো মানসিক অসুস্থতার দিকে নিয়ে যেতে পারে। শুধু মানসিক নয়, শারীরিকভাবেও আমাদের ক্ষতির সম্মুখীন করে মন খারাপ নামক এই জটিলতা। অনেক সময় মন খারাপ হলে কী করতে হবে তা আমরা বুঝে উঠতে পারি না। তাই চটজলদি মন ভালো করার উপায় জেনে নিন-

মন ভালো করতে যেসব খেতে পারেন

ফলের রস

কমলায় থাকে প্রচুর ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টস। এতে আরও আছে ক্যারটিনয়েড ও ফ্ল্যাভোনয়েড। আমাদের শরীর এসব উপাদান খুব সহজে গ্রহণ করতে পারে। এগুলো মন ভালো করতে কাজ করে। তাই মন খারাপ লাগলে একগ্লাস কমলার রস খেয়ে নিন। চিনি কিংবা জল কোনোটাই মেশাবেন না, শুধু কমলার রসটুকু খাবেন। এতে মন ভালো হবে দ্রুত।

ডার্ক চকোলেট

একথা নিশ্চয়ই এতদিনে জেনে গেছেন যে চকোলেট মন ভালো রাখতে কাজ করে। এই চকোলেট হতে হবে ডার্ক চকোলেট। এটি চটজলদি আপনার মন ভালো করে দেবে। এটি শুধুমাত্র ধারণা নয়, এর পেছনে আছে বিজ্ঞানসম্মত ব্যাখ্যাও। সবচেয়ে ভালো হয় ড্রাই ফ্রুটস মেশানো ডার্ক চকোলেট খেতে পারলে। এই চকোলেট খেলে এন্ডোমরফিন হরমোন নিঃসরণ হয়। এটি মন ভালো করতে সহায়ক।

হার্বাল টি

চা খেতে খেতে আড্ডা দেওয়ার পর দেখা গেল আপনার মন অনেকটাই ফুরফুরে লাগছে। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা যেমন আপনার মন ভালো করতে পারে, তেমনই এক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করতে পারে হার্বাল টি। খেতে খুব বেশি সুস্বাদু মনে না হলেও এটি কিন্তু আপনার মনকে অনেকটাই ভারমুক্ত করে দেবে। মন খারাপ লাগলেই এককাপ ক্যামোমাইল বা জিঞ্জার টি বানিয়ে খেয়ে নেবেন। এতে কমবে মানসিক চাপ, সেইসঙ্গে মনও ভালো থাকবে।

যেসব কাজ মন ভালো করতে পারে

মিউজিক

পছন্দের কোনো মিউজিকের তালে মনটা নেচে ওঠে মুহূর্তেই। সে কারণে অনেক মনোবিদ আমাদের মন ভালো করার জন্য মিউজিক থেরাপির সাহায্য নিতে বলেন। মন খারাপ লাগলে পছন্দের কোনো গান শুনতে পারেন। তাতে মন মুহূর্তেই হেসে উঠবে। কেটে যাবে সমস্ত মন খারাপ।

নাচ

এই নাচ মানেই একেবারে মুদ্রা, ছন্দ মেনে নাচতে হবে তা কিন্তু নয়। যেমন খুশি নাচুন। বাড়িতে একা থাকলে তো কথাই নেই! জোরে মিউজিক বাজিয়ে ধুমধারাক্কা নাচুন। এতে আপনার মন দ্রুতই ভালো হয়ে যাবে। সেইসঙ্গে শরীরও অনেকটা ফুরফুরে লাগবে।

হাঁটুন

ধরুন, সারাদিন অনেক কাজ করে ক্লান্ত। এদিকে ভালো নেই মনও। এই অবস্থায় আপনাকে হাঁটতে বললে কি রাগ করবেন? বিশ্বাস করুন, এখন আপনার মন ভালো করার জন্য একটুখানি হেঁটে আসা জরুরি। বাড়ি থেকে বের হয়ে কাছে কোথাও ঘুরে আসুন। পার্ক থাকলে একটু হাঁটাহাঁটি করে আসুন। দেখবেন, কত দ্রুত মন ভালো হয়ে গেছে!

বন্ধুর সঙ্গে

আপনার পাশে যদি অন্তত একজনও বন্ধু থাকে, তাহলে আর মন খারাপ করে থাকতে হবে না। তার সঙ্গে কথা বলুন। কী নিয়ে মন খারাপ তার পুরোটাই তার সঙ্গে ভাগাভাগি করুন। এতে মনের ভার অনেকটাই কমবে। বন্ধু যদি কাছে না-ও থাকে, ফোন করে তার সঙ্গে কথা বলুন। এতে মন অনেকটাই ভালো হয়ে যাবে।

Related Articles

Back to top button