April 14, 2024 | 8:28 PM

বর্তমানে ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে। শপিংমল থেকেই হোক বা অনলাইনে কেনাকাটা সবখানেই ব্যবহৃত হচ্ছে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড। মানিব্যাগে টাকা রাখার চেয়ে পাতলা এই প্লাস্টিকের কার্ড ব্যবহার করার সুবিধা অনেক।

বর্তমানে এসব কার্ড দিয়ে টাকা ওঠানোর সুব্যবস্থাও আছে সবখানেই। যে কোনো জায়গায়ই আপনি বিভিন্ন ব্যাংকের বুথ পেয়ে যাবেন। যেখান থেকে ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড থেকে টাকা তুলতে পারবেন সহজেই।

তবে বিশেষ প্রয়োজনীয় এসব কার্ড যদি হঠাৎ হারিয়ে যায় কিংবা টাকা তোলার সময় বুথে আটকে যায়, তখন দ্রুত কী করতে হবে তা অনেকেরই অজানা। জেনে নিন ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড হারিয়ে গেলে করণীয়-

>> ডেবিট বা ক্রেডিট- যে কার্ডই হোক, হারিয়ে গেছে বুঝতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকের দেওয়া নম্বরে ফোন করে ব্লক করুন।

>> ব্লক করার পরেও টাকা উঠলে সেটার দায় ব্যাংকের। তখন ব্যাংক আপনাকে ওই টাকা ফেরত দিতে বাধ্য। তবে কার্ড ব্লক না হলে এবং টাকা উঠে গেলে সে দায় কিন্তু ব্যাংকের নয়।

>> যদি ইন্টারনেট ব্যাংকিং করেন, তাহলে ব্যালেন্স চেক করুন। কোনো গরমিল মনে হলে তখনই ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জানান।

>> ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর আপনার অ্যাকাউন্ট নম্বর, কার্ড হারানোর তারিখ, সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে জানানোর সময় ইত্যাদি তথ্যের মেইল আসবে আপনার ই-মেইলে।

>> মেইলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। লেনদেন দেখুন, কার্ড হারানোর পর লেনদেন হয়েছে দেখলে দ্রুত ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে জানান।

>> অনেক সময় এটিএম ট্রানজ্যাকশন মেশিন পুরোনো হলে বা কোনো ত্রুটি থাকলে কার্ড লক হয়ে মেশিনেই আটকে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে ব্যাংকের নির্দিষ্ট শাখায় সেই কার্ড জমা পড়ে যায়। এক্ষেত্রেও একই কাজ করুন।

জেনে রাখুন

>> কার্ড ও পাসওয়ার্ডের বিষয়ে সচেতন থাকুন। মনে রাখা সহজ এমন পাসওয়ার্ড দিন। কোথাও পাসওয়ার্ড বা পিন লিখে রাখা কিংবা মোবাইলে লিখে সেভ করে রাখার মতো ভুল করবেন না।

>> মানিব্যাগ, হ্যান্ড ব্যাগ, পকেট এধরনের কোথাও পিন বা পাসওয়ার্ড লিখে গোপন করে রাখবেন না।

>> প্রয়োজন যখন হবে শুধু তখনই ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডটি সঙ্গে রাখুন।

>> বাড়িতে একটি নোটবুকে অ্যাকাউন্ট নম্বর, কার্ডের মেয়াদের তারিখ, জরুরি তথ্যসেবা কেন্দ্রের ফোন নম্বর, কোন শাখা থেকে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলেছেন এসব তথ্য লিখে রাখুন।