জীবনযাপন

বড়দিনের সাজ পোশাক যেমন হওয়া চাই, জেনেনিন

বড়দিন বা ক্রিসমাস হচ্ছে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় উৎসব। এই উৎসবকে ঘিরে থাকে নানা রকম আয়োজন। যেহেতু বছরে একদিনই তারা এই ধর্মীয় উৎসব পালন করেন, তাই এই উৎসবকে ঘিরে অনেক আগে থেকেই তাদের প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়।

এই দিনে সকাল থেকে শুরু করে ভোর পর্যন্ত একের পর এক পার্টি চলতে থাকে। তাইতো প্রত্যেক পার্টিতেই নিজের লুক অক্ষুণ্ণ রাখতে সঠিক ফ্যাশন বেছে নেয়া আবশ্যক। এই দিনে কখননোই স্টাইলের সঙ্গে কম্প্রোমাইজ করা যায় না। তবে বড়দিনে সঠিক ফ্যাশনকে বেছে নিতে প্রয়োজন কিছু ছোটখাটো পরিবর্তনের। এই ছোটখাটো পরিবর্তনগুলোই আপনার সামগ্রিক ফ্যাশনে এনে দিতে পারে আমূল পরিবর্তন। এর জন্য আপনাকে প্রচুর পরিশ্রমও করতে হবে না, আর মারাত্মক দামি সাজেও সাজতে হবে না।

শীতের এই সুন্দর সময়ে একটু গাঢ় উজ্জ্বল রঙে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন। উজ্জ্বল রঙের একটা নিজস্ব গ্ল্যামার আছেই। বিয়ের অনুষ্ঠান হোক কিংবা অন্য কোনো পার্টির নিমন্ত্রণ, সেখানেও আপনি উজ্জ্বল রঙের পোশাক ট্রাই করতে পারেন। তার সঙ্গে মেকআপেও নজর দেবেন। ডিউই লুক ট্রাই করুন। অ্যাকসেসরিজের দিকেও অল্প নজর দিন। এমন জমকালো গয়না পরবেন না, যা আপনার পোশাকের থেকেই নজর ঘুরিয়ে দেয়। আপনার গয়না ও পোশাক যেন একে অপরের পরিপূরক হয়ে ওঠে।

সত্যি বলতে পার্টি বা অন্য কোনো অনুষ্ঠানের মৌসুম যেন এই শীতকাল। মনের মতো করে সাজগোজ করা যায়। গরমে ঘেমে মেকআপ উঠে যাওয়ার বা সাজ নষ্ট হয়ে যাওয়ার বিন্দু মাত্র চিন্তা নেই। এই সময় প্যাস্টেল রঙের পরিবর্তেও অন্যান্য গাঢ় ও উজ্জ্বল রঙ বেছে নিতে পারেন আপনি। লাল রঙের হলে তো একদমই মন্দ হয় না। কিন্তু তার সঙ্গে জমকালো গয়না না পরাই ভালো।

আপনি কালো, লাল, ওয়াইন, গাঢ় খয়েরি, বটনগ্রিন, রয়াল ব্লু, নেভি ব্লু-এর মতো রঙ এই শীতে পরার জন্য বেছে নিতে পারেন। শীতের সন্ধ্যায় কোনো পার্টি থাকলে, সেখানে এই রঙের শাড়ি বা কোনো ওয়েস্টার্ন পোশাক পরে যান। আপনি তসর, টুইড, কটসউল, কর্ড, সিল্ক, সার্জের মতো মেটিরিয়ালের পোশাক পরতে পারেন। হাউজ পার্টিতে অবশ্যই রিপড জিন্স পরতে পারেন। তার সঙ্গে পরে নিন আপনার পছন্দের অফ শোল্ডার টপ। কনভার্স বা বুট পরতে পারেন। আপনি শিমার ড্রেস পরতে পারেন বা শিমার টপও পরতে পারেন। লাল বা কালো রঙের হলে বেশি ভালো হয়। যেকোনো পার্টির জন্য শিমারস সবসময়ই দারুণ বিকল্প।

মেকআপে নতুন কিছু ট্রাই করতে পারেন। আপনি প্যাস্টেল শেড এবং নুড লিপস্টিকের বদলে অন্য কিছু ট্রাই করুন। যেমন আপনি গাঢ় লাল লিপস্টিক পরতে পারেন। কিন্তু তখন চোখের মেকআপ খুব ভারী না করাই ভালো। তবে চোখের পাতায় লিকুইড মেটালিক শ্যাডো লাগিয়ে নিতে পারেন। ম্যাট ব্রোঞ্জ শেড লাগান। তারপর তা ব্লেন্ড করে নিন। মাস্কারার একাধিক কোট লাগান। গ্লো বেস লাগিয়ে নিন। আর প্রয়োজন ন্যুড লিপস্টিক।

Related Articles

Back to top button