জীবনযাপন

অতিরিক্ত স্মার্ট ফোন ব্যবহার হতে পারে অকাল মৃত্যুর কারণ! জেনেনিন বিস্তারিত

ডিজিটাল যুগে সময় কাটেও ডিজিটাল ভাবে। এখন বন্ধু মানে আর একসাথে চা খেতে খেতে গল্প করা নয়, এখন সব কথপোকথনের মাধ্যম স্মার্টফোন। আজকাল স্মার্টফোন ছাড়া নিজেকে চিন্তা করাই কঠিন। প্রয়োজনীয় কাজ থেকে শুরু করে অবসরে বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে সবাই এখন স্মার্টফোন ব্যবহার করেন।

কিন্তু জানেন কি, এই স্মার্টফোন আপনার অজান্তেই ডেকে আনছে মারাত্মক বিপদ!

স্মার্টফোন অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে আমাদের চোখ ও মন উভয়ই। তাছাড়া করোনার কারণে এখন সবাই ঘরবন্দি জীবন কাটাচ্ছেন। ফলে অবসর সময় কাটাতে মানুষ বেশিরভাগ সময় কাটাচ্ছেন ফোনর সঙ্গে।

চলুন জেনে নেই কীভাবে স্ক্রিনের চড়া আলোর হাত থেকে চোখ ও মনকে রক্ষা করা যায়–

* অ্যাপ স্টোরে খুব শীঘ্রই পাওয়া যাবে ‘গো গ্রে’ নামক একটি অ্যাপ। এই অ্যাপ সাহায্য করবে ফোনকে নির্ধারিত সময়ে গ্রেস্কেল’ মোডে রাখতে, যা ফোনের ব্রাইটনেস কম রাখবে। ফলে চোখের উপর চাপও কম পড়বে।

* ফোনের অ্যাপের মাধ্যমেই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন ইন্টারনেট সংযোগকে, যা আপনাকে কিছুক্ষণের জন্য দূরে রাখবে আপনার ফোনের থেকে।

* ফোন আসার পর থেকেই সময় দেখার জন্য ঘড়ির বদলে মুঠো ফোনকেই বেছে নিয়েছেন বেশিরভাগ মানুষ। ফোনের পরিবর্তে ব্যবহার করুন ‘স্মার্ট ওয়াচ’। ‘স্মার্ট ওয়াচের স্ক্রিন ফোনের চাইতে বেশ অনেকটাই ছোট তাই ভয়ের আশঙ্কাও নেই।

* ফোনের থেকে নিজেকে দূরে রাখতে ব্লুটুথ হেডফোন বা ইয়ার প্যাড ব্যবহার করুন।

* মোবাইল অ্যাপগুলো বানানোই হয় যাতে আপনি আপনার অধিকাংশ সময় কাটান আপনার সাধের ফোনটির সঙ্গে। অ্যাপের পরিবর্তে ব্যবহার করুন ওয়েবসাইট। ফোন থেকে মুছে দিন সেইসব অ্যাপ যেগুলো বেশিই ব্যবহার করে থাকেন।

* আপনার ফোনের ‘ডু নট ডিসটার্ব’ অপশনে গিয়ে সেটাকে অন করে দিন। এছাড়া আপনি যদি হন অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী, তাহলে প্রথমে ফোনের সেটিংস অপশনে গিয়ে অ্যাপ ও নোটিফিকেশন বার খুলুন। রিসেন্টলি সেন্ট নামে একটি অপশন আসবে, সেখান থেকে আপনার পচ্ছন্দসই অ্যাপটি বেছে তার সেটিং পরিবর্তন করুন। তাহলেই বার বার ফোন খুলে দেখার ঝক্কি কমে যাবে, রেহাই পাবে আপনার চোখও।

Related Articles

Back to top button