‘এক সেকেন্ড লাগবে না, তোমার বাড়ি সামনে মরা কুকুর ফেলে আসতে’ বিস্ফোরক মমতা

More articles

বিজেপির এক নেতার মরদেহ বাড়ির সামনে নিয়ে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) কলকাতার ভবানীপুর কেন্দ্রের শীতলা মন্দির নির্বাচনী সভায় এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

এসময় হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, তুমি আমার বাড়ির সামনে মরদেহ নিয়ে চলে আসছ। আমি যদি চাই তাহলে এক সেকেন্ড সময় লাগবে না, তোমার বাড়ির সামনে মরা কুকুর ফেলে আসতে। তখন কি হবে? ১০ দিন খেতে পারবে না।

গত ২২ সেপ্টেম্বর হাসপাতালে মারা যান পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা মানস সাহা। বিজেপির অভিযোগ, ভোটগণনার দিন তৃণমূলের হামলায় তিনি আহত হয়েছিলেন। পরে মারা যান।

এরপর ২২ সেপ্টেম্বর মানস সাহার মরদেহ নিয়ে মমতার বাড়ির দিকে যাওয়ার চেষ্টা করেন বিজেপি নেতারা। নেতৃত্বে ছিলেন নবনিযুক্ত রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) সিপিএমের সমালোচনা করে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সিপিএম ৩৪ বছর কত অন্যায় করেছে। কই তাদের বিরুদ্ধে তো কোনো সিবিআই-ইডি করেনি।

নিজ দল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কথায় কথায় সিবিআই-ইডি করা হয় বলে অভিযোগ করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমার বিরুদ্ধে, অভিষেকের বিরুদ্ধে, পার্থ দা, সৌগত দার বিরুদ্ধে সিবিআই করেছে।

পশ্চিমবঙ্গে লোডশেডিং করতে দেওয়া হয় না উল্লেখ করে মমতা ব্যানার্জী বলেন, যখন বর্ষা হয় তখন আমি সবাইকে অনুরোধ করবো ওই সময় দয়া করে লাইটের সুইচে হাত দেবেন না। সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

ভারতের কলকাতার পিজি হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থা সবচেয়ে ভালো বলে জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আগে আমি নার্সিং হোমে যেতাম। কিন্তু এখন যাই না। এখন পিজিতে যাই। পিজি হচ্ছে বিশ্বের এক নম্বর হাসপাতাল।

করোনা টিকার বিষয়ে তিনি বলেন, টিকা প্রদানে বাংলা (পশ্চিমবঙ্গ) এক নম্বরে। আমরা নিজেরা এখন কিনতে পারছি না, কিনতে দেওয়া হচ্ছে না। থার্ড ওয়েভ যাতে না আসে আমরা সেই প্রার্থনা করবো।

এসময় দিল্লির রোহিনী আদালতে নজিরবিহীন হামলার ঘটনার কথা উল্লেখ করেন মমতা। তিনি বলেন, আজকেও তো দিল্লিতে কোর্টে ঢুকে মানুষ খুন করে দিল। উত্তর প্রদেশ বা বিহারের ক্ষেত্রে মানবাধিকার কমিশন কোথায় থাকে। তুমি মানুষকে খুন করে তার মরদেহের ওপর উঠে নাচ। তোমার লজ্জা করে না।

ভারতকে ক্যাশলেস (নগদ অর্থহীন) করা যাবে না। সেখানে কার্ডও থাকবে, ক্যাশও থাকবে বলে জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

মমতা বলেন, অস্ট্রেলিয়া থেকে একটা সার্ভে টিম এসেছিল। তারা বলেছে আগামী ২০ বছরে পশ্চিমবঙ্গ হবে ইন্ড্রাস্টিয়াল ডেসটিনেশন।

সভায় উপস্থিত জনতার উদ্দেশে মমতা ব্যানার্জী বলেন, আপনারা যদি ভোট না দেন, তাহলে বাংলার উন্নয়ন কিন্তু থেমে যাবে। ভবানীপুর যদি হেরে যায়, তাহলে আগামী দিনে সারা ভারতবর্ষ হেরে যাবে। আমরা ভারতকে তালেবান রাষ্ট্র হতে দেব না।

Latest