মাছের তেল খেলে শরীরে কী ঘটে?

Written by News Desk

Published on:

মাছের তেল শরীরের জন্য অনেক উপকারী। এ কারণে পুষ্টিবিদরা মাছের তেল খাওয়ার পরামর্শ দেন। এতে থাকে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। যদিও মাছের তেলের বেশ কিছু উপকারিতা আবার অপকারিতাও আছে। প্রথমে জেনে নিন মাছের তেলের উপকারিতা কী কী-

ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ

হার্ট ও ব্রেনের জন্য একটি ফ্যাটি অ্যাসিড ভীষণ জরুরি। সেটির নাম ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। মাছের তেল এই ফ্যাটি অ্যাসিডে ভরপুর থাকে। নতুন কোষ তৈরি করে এই ফ্যাটি অ্যাসিড। শরীরে শক্তি জোগায়। ভিটামিন ই, এ ও কে সরবরাহ করে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড।

চোখের জন্য ভালো

মাছ চোখের জন্যও ভালো। শুধু মাছ নয়, মাছের তেলও কম যায় না। এর মধ্যে আছে ডিএইচএ (ডোকোসাহেক্সানয়িক অ্যাসিড) ও ইপিএ (এইকোসাপেনটানোয়িক অ্যাসিড)। এই দুটি উপাদান শরীরে থাকলে বয়স বাড়লেও চোখের সমস্যা হয় না।

হাড়ের ঘনত্ব বাড়ায়

হাড়ের ঘনত্ব কমে গেলে হাড় দুর্বল হয়ে যায়। তখন সহজেই হাড় ভঙ্গুর হয়ে পড়ে। মাছের তেল খেলে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড হাড়ের খনিজ পদার্থকে ক্ষয়ে যেতে দেয় না । এর ফলে হাড় মজবুত থাকে।

রক্তচাপ কমায়

যারা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন, তারা নিয়মিত খেতে পারে মাছের তেল। এতে থাকা ডিএইচএ ও ইপিএ উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমায়

মাছের তেলে আছে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান, যেগুলো অস্ট্রিও আর্থ্রাইটিস ও রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে বলে জানা গেছে একাধিক গবেষণায়।

মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়

মাছের তেলে থাকে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড। যা মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। এটি উদ্বেগ ও মানসিক অবসাদ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে।

মাছের তেলের অপকারিতা কী কী?

ওজন বাড়াতে পারে

অতিরিক্ত মাছের তেল খেলে ওজন বেড়ে যেতে পারে। কারণ মাছের তেলের মধ্যে থাকে ফ্যাট। আর ভালো হলেও এই চর্বি বেশি গ্রহণে ওজন বাড়তে পারে। তাই একটি নির্দিষ্ট পরিমাণে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে মাছের তেল গ্রহল করতে পারেন।

পেটের সমস্যা হতে পারে

অতিরিক্ত মাছের তেল খেলে পেটের সমস্যা হতে পারে। যারা এই সমস্যায় ভুগবেন তাদের ক্ষেত্রে মাছের তেল না খাওয়াই ভালো

Related News