মাথাব্যথায় নাজেহাল? ভরসা রাখুন এই কয়েকটি ঘরোয়া টোটকায়

Written by TT Desk

Published on:

বাড়ছে রোদের তীব্রতা। এই সময় প্রখর রোদে ঘোরাঘুরি করলে মাঝেমধ্যেই মাথার যন্ত্রণায় নাজেহাল হন অনেকে। তাছাড়া সাইনাস থেকে শুরু করে মাইগ্রেন কিংবা চোখের সমস্যা— নানা কারণেই হতে পারে মাথার যন্ত্রণা। মাথাযন্ত্রণা বাড়াবাড়ির পর্যায়ে গেলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
অনেকেই সামান্য মাথা যন্ত্রণা হলেই ব্যথানাশক ওষুধ খেয়ে ফেলেন। তাতে সাময়িক স্বস্তি মিললেও এই অভ্যাস কিন্তু মোটেই ভালো নয়। সামান্য মাথব্যথা হলে ঘরোয়া উপায়ে কমিয়ে ফেলা যায় এই যন্ত্রণা। মাত্র দু’টি উপকরণ দিয়ে বাড়িতেই তৈরি করে ফেলুন ব্যথানাশক বাম। কীভাবে বানাবেন? চলুন জেনে নেয়া যাক-

ঘরে বাম বানাতে কী কী লাগবে?

খাঁটি নারকেল তেল আর ল্যাভেন্ডারের এসেনশিয়াল তেলেই মিলবে আরাম।

কীভাবে বানাবেন বাম?

একটি পাত্রে খাঁটি নারকেল তেল নিয়ে ভালো করে গরম করে নিন। এবার গরম তেলের মধ্যে কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল তেল মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি ঠান্ডা হলে কাচের শিশিতে ভরে রাখুন। পারলে ফ্রিজে রেখে একটু জমিয়েও নিতে পারে। এরপরে মাথায় যন্ত্রণা হলে, শিশি থেকে এই বাম একটু নিয়ে কপালে লাগান। ব্যথা কমে যাবে নিমেষেই।

এসেনশিয়াল তেল প্রাচীন কাল থেকেই ব্যথা প্রতিরোধক হিসেবে ব্যবহার করা হয় থাকে। এর গন্ধ মস্তিষ্কের স্নায়ুগুলোকে শান্ত করে, মানসিক ক্লান্তিভাব কমায়। আর এর জেড়েই মাথাব্যথার সমস্যা থেকে রেহাই মেলে।

তবে অনেকের আবার নানা এসেনশিয়াল তেলে অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দেয়। তাই মাথায় ব্যবহারের আগে হাতের তালুতে অল্প পরিমাণে লাগিয়ে দেখে নিন কোনো সমস্যা হচ্ছে কি না। না হলে তবেই কপালে লাগাবেন। নিয়মিত মাথাব্যথার সমস্যা হলে কিন্তু অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তখন ঘরোয়া পদ্ধতির উপর ভরসা রাখা যাবে না।

Related News