অ্যালোভেরায় রয়েছে বিশেষ গুনাগুন, যা আপনাও হয়তো অজানা ছিল

Written by TT Desk

Published on:

অ্যালোভেরা আমাদের জন্য উপকারী, সেকথা কম-বেশি সবারই জানা। শারীরিক নানা সমস্যা এড়াতে কিংবা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে অ্যালোভেরা বেশ কার্যকরী। চুল ভালো রাখতেও প্রয়োজন পরে অ্যালোভেরার। অনেকের বাড়িতেই আছে এই অ্যালোভেরা গাছ। বাইরেও বেশ সহজলভ্য।

অ্যালোভেরায় রয়েছে ক্যালসিয়াম, সোডিয়াম, জিংক, আয়রন, পটাশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, জিঙ্ক, ফলিক অ্যাসিড, অ্যামাইনো অ্যাসিড ও ভিটামিন-এ, বি৬ ও বি২ ইত্যাদি, যা স্বাস্থ্যরক্ষার বিভিন্ন কাজে লাগে। প্রতিষেধক হিসেবেও দারুণ কার্যকরী এই অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরা বিভিন্ন কাজে আসে। বিস্তারিত প্রকাশ করেছে ইন্ডিয়ান টাইমস-

হজম শক্তি বাড়ায়
হজম শক্তি বাড়াতে অ্যালোভেরার বেশ কার্যকরী। এর অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান পাকস্থলী ঠান্ডা রাখে এবং গ্যাসের সমস্যা দূর করে। প্রতিদিন সকালে খালি পেটে এক গ্লাস জল বা গুড়ের শরবতের সঙ্গে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে খেলে উপকার মিলবে দ্রুত।

ডায়াবেটিস দূরে রাখতে
ডায়াবেটিসে আক্রান্তের সংখ্যা কম নয়। বর্তমানে বিভিন্ন বয়সের মানুষের ভেতরেই এই সমস্যা দেখা যাচ্ছে। যারা ডায়াবেটিসের সমস্যায় ভুগছেন তারা নিয়মিত অ্যালোভেরার রস খেলে রক্তের গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে আনতে এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

চুলের যত্ন নিতে
চুলের যত্নে অ্যালোভেরা বেশ উপকারী। চুলের শুষ্ক ভাব এবং ত্বকে চুলকানি দূর করার জন্য অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন। এর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল উপাদান চুল পড়া ও খুশকির সমস্যা দূর করে। অ্যালোভেরা রসের সঙ্গে আমলকীর রস মিশিয়ে চুলে ব্যবহার করলে চুলের উজ্জ্বলতাও বেড়ে যাবে। চুল ভালো রাখতে নিয়মিত ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা।

ত্বকের যত্নে
ত্বক ভালো রাখতে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা। র্যাশ, চুলকানি, রোদে পড়া দাগ দূর করতে অ্যালোভেরা বেশ কার্যকরী। যেকোনো উপটান বা প্যাকের সঙ্গে অথবা সরাসরি এই জেল ব্যবহার করলে ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ থাকে। বয়সের ছাপ দূর হয় অনেকটাই। ত্বকে তারুণ্য ধরে রাখতে অ্যালোভেরা ব্যবহার করুন নিয়মিত।

ওজন কমাতে
ওজন কমানোর চেষ্টা করে থাকেন অনেকেই। এক্ষেত্রে অ্যালোভেরার জুস অনেক অনেকটাই কার্যকরী। অ্যালোভেরা জুসের অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান শরীরের জমে থাকা মেদ দূর করে এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই ওজন কমাতে সাহায্য করে। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে এটি নিয়মিত পান করতে পারেন।

হার্ট ও দাঁত ভালো রাখতে
নিয়মিত অ্যালোভেরার জুস পান করলে অনেক উপকার মেলে। এটি কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে রাখে। এটি দূষিত রক্ত শরীর থেকে বের করে দেয় এবং হৃদযন্ত্রকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। অ্যালোভেরা জুস দাঁত এবং মাড়ির ব্যথা ও ইনফেকশন নিবারণে সাহায্য করে।

Related News