আদর্শ সঙ্গমের স্থায়িত্ব কত সময়, যা বলছে আধুনিক গবেষণা

Written by TT Desk

Published on:

যখন সময়, পরিস্থিতি এবং ইচ্ছে হয়, সাধারণত সেই সময়ই শারীরিক মিলনে লিপ্ত হন যে কোনও জুটি। কিন্তু আয়ুর্বেদিক মত অনুযায়ী সব কিছুরই বিশেষ সময় রয়েছে।

কোন সময়ে শারীরিক মিলন বেশি হলে ক্ষতি নেই, কোন সময় রয়েছে, সবেরই নির্দেশ দেয়া রয়েছে আয়ুর্বেদে।

ওজ কী—

আয়ুর্বেদিক মত অনুযায়ী শরীরে ৭টি গুরুত্বপূর্ণ ধাতু রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম ধাতুরস। এটির সঙ্গে শুক্র ধাতুর উৎপাদন জড়িয়ে রয়েছে। এটি তৈরি হতে মোটামুটি এক মাস মতো সময় লাগে। শরীরের সবচেয়ে উৎকৃষ্টতম রসের মধ্যে এটি একটি। শরীরে যৌনরস তৈরি হতে অনেকটাই সময় লাগে। সেখান থেকে তৈরি হয় ওজ, যা নতুন জীবন সৃষ্টি করার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

যৌনস্ফূর্তি কীভাবে প্রভাবিত হয়—

আরও একটি জিনিস যৌনস্ফূর্তিতে প্রভাব ফেলে। এটাকে বলে ‘আপন বায়ু’। ঋতুস্রাব, অরগ্যাজম এবং সন্তান উৎপাদনের জন্য জরুরি এই ‘আপন বায়ু’।

কোন সময়ে যৌনমিলন করা উচিত—

সাধারণত ঘনিষ্ট মুহূর্তগুলো রাতের জন্য তুলে রাখেন সবাই।

▪ আয়ুর্বেদ বলছে সূর্যোদয়ের পর সকাল ৯টা বা ১০টা মধ্যে যৌনমিলন হলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাওয়া যায়।

▪ শীত বা বসন্তে যৌনমিলন করলে সবচেয়ে ভাল অভিজ্ঞতা পেতে পারেন।

▪ গরমকালে শরীর বেশি ক্লান্ত থাকা যৌনরস ঠিক মতো উৎপাদন হয় না।

কোন মৌসুমে—

শীতকালে বা বসন্তকালে যৌনমিলনে লিপ্ত না হলে শরীরে যৌনরস নষ্ট হয়। তাই এই সময়ে সপ্তাহে ৩ দিন পরামর্শ দেয়া হয়। কিন্তু গরমে সপ্তাহে ১ বা ২ দিনের বেশি যৌনমিলনের মত নেই আয়ুর্বেদে

Related News