আপনার ঘুম ভেঙ্গে যায় রাতে ?তাহলে জানুন এর কারণগুলো

সুস্থ্যতার জন্য মানুষের অবিরাম ঘুম খুব প্রয়োজন। অবিরাম ঘুমে যদি ব্যাঘাত ঘটে এবং ঘুম যদি পরিপূর্ণ না হয়, তাহলে শরীর খারাপ হতে পারে এবং দেখা দিতে পারে নানা অযাচিত অনুসঙ্গ।

অনেকেরই রাতের বেলা ঘন ঘন ঘুম ভেঙ্গে যায়। অবিরাম ঘুম হয় না। ফলে পরের দিন মাথাব্যথা ও ক্লান্তি দেখা দেয়। তবে অনেকেই জানেন না কেন হঠাৎ করে ঘনঘন ঘুম ভেঙে যায়।

বর্তমান সময়ে সবার মধ্যেই অনিয়মিত জীবনযাপনের প্রবণতা বেড়েছে। সবাই সময়মতো খাওয়া, ঘুমানো বা ব্যায়াম করার দিকে খুব একটা মনোযোগ দিতে পারে না। এতে শারীরিকভাবে অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকিও বেড়ে যায়।

আসলে ঘুমের মধ্যে আমাদের শরীর বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে। আপনি যদি সঠিক সময়ে না ঘুমান কিংবা ঘুমের পরিবেশ ঠিক না রাখেন তাহলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটবেই।

ঘুমানোর ঠিক আগেও অনেকেই এমন ভুল করে থাকেন, যার কারণে রাতে বারবার ঘুম ভেঙ্গে যায়। কারণগুলো জেনে নিন

>> অনেকেই রাতে খাওয়ার পরপরই শুয়ে পড়েন। এটি কিন্তু মারাত্মক একটি ভুল অভ্যাস। রাতের খাওয়া শেষ করার অন্তত ২ ঘণ্টা পর ঘুমাতে হবে।

পেট ভরে ঘুমাতে গেলে শরীরের মেটাবলিক রেট কমে যায়। ফলে খাবার হজম হতে সময় লাগে এবং রাতে ঘুমানো কঠিন হয়ে পড়ে। তাই রাতের খাবারের পরপরই ঘুমানোর অভ্যাস ত্যাগ করুন।

>> ঘুমের আগে সব ধরনের বৈদ্যুতিক যন্ত্র ব্যবহার করা বন্ধ করুন। অনেকেই রাতে ঘুমানোর আগে শুয়ে শুয়ে ফোন ব্যবহার করেন কিংবা টিভি দেখেন। এসবের বদলে হালকা যোগাসন করুন।

একই সঙ্গে শ্বাসের ব্যায়াম বা ধ্যান করুন। ঘুম না আসলে পছন্দের বই পড়ার অভ্যাস করুন। দেখবে দ্রুত ঘুম চলে আসবে। এমন ঘুম গভীর হয়।

>> রাতে ঘুমানোর আগে খানিকটা সময় নিজের জন্য বের করুন। এ সময় রূপচর্চা করতে পারেন। একই সঙ্গে গরম জলে পা ডুবিয়ে রাখুন ১০-১৫ মিনিট। এতে সব ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে। ফলে রাতে ভালো ঘুম হবে।

>> অনেকেই রাতে শুয়ে শুয়ে বন্ধু-বান্ধব বা আত্মীয়ের সঙ্গে ফোনে গল্প করেন। এ সময় হতাশা, রাগ, দুঃখ প্রকাশ করেন অনেকেই। জানেন কি, নেতিবাচক চিন্তার কারণেও আপনার ঘুমে খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

তাই ঘুমানোর আগে মনে শান্তি আনুন ও ইতিবাচক চিন্তা করুন। দেখবেন দ্রুত ঘুমিয়ে পড়েছেন। আর এমন ঘুমও গভীর হবে। ফলে বারবার রাতে ঘুম ভাঙার আশঙ্কাও থাকবে না।

>> ঘুমানোর আগে অবশ্যই আরামদায়ক পোশাক পরুন। এখন যেহেতু গরম, তাই পাতলা সুতির কাপড় পরে ঘুমান। আবার চুল বেশি টাইট করে বেঁধে ঘুমাবেন না। এতে চুল ঝরবে বেশি আবার মাথাও ব্যথা হবে।

Related Posts

© 2023 Totka24x7 - Theme by WPEnjoy · Powered by WordPress