‘বিশ্বের প্রতিটি কোনায় করোনা ভ্যাকসিন পৌঁছে দেবে ভারত’, ভ্যাকসিন সরবরাহ নিয়ে বার্তা প্রধানমন্ত্রীর

দেশে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা বাড়লেও তার সাথে সুস্থতার হারও বাড়ছে। আর যা এক ইতিবাচক ভূমিকা পালন করে। আর এই মুহূর্তে দরকার করোনা ভ্যাকসিনের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দাবি অনুযায়ী, চলতি বছরের শেষে অথবা ২০২১ সালের শুরুতে ভারতের বাজারে আসতে পারে করোনার ভ্যাকসিন। তবে শুধু ভ্যাকসিন আবিষ্কার হলেই চলবে না। এর জন্য প্রয়োজন সঠিক ও পর্যাপ্ত বন্টন ব্যবস্থা। আর এই নিয়ে শনিবার বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

শনিবার নীতি আয়োগ, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তিনি। মোদী বলেন, “বিশ্বের প্রতিটি কোণায় ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়ার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করতে হবে। এর জন্য প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে হবে। স্থানীয়, রাজ্য ও জাতীয় স্তরের প্রশাসনকে একসাথে মিলিত হয়ে কাজ করতে হবে। জাতীয় বিপর্যয় বা নির্বাচন প্রক্রিয়ার সময় প্রশাসন যেমন ব্যবস্থাপনা গ্রহণ করে, এক্ষেত্রেও সেরকম উদ্যোগ নিতে হবে।”

এর সাথেই তিনি এই বন্টন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সাইবার প্রযুক্তির সাহায্যও লাগবে বলেও জানিয়েছেন। কোথায় ভ্যাকসিনগুলিকে রাখা হবে, কীভাবে বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে দেওয়া হবে, কীভাবে জনগণকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, আর পুরো বিষয়ে কীভাবে নজর রাখা হবে এই সমস্ত নথি রাখতে হবে। এছাড়া তিনি এটাও জানিয়েছেন যে শুধু দেশের মানুষের কাছে ভ্যাকসিন পৌঁছে দিলে হবে না। বিশ্বের মানুষের কাছেও এই প্রতিষেধক পৌঁছে দেওয়া ভারতের দায়িত্ব বলে উল্লেখ করেন মোদী।